টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আয়োজক হতে চায় যুক্তরাষ্ট্র

মহামারী করোনাভাইরাসের কারণে আইপিএল পিছিয়ে গেছে। অলিম্পিক গেমস পিছিয়ে গেছে এক বছর। ১৮ অক্টোবর অস্ট্রেলিয়ায় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শুরু হওয়ার কথা। করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে নির্ধারিত সময়ে বিশ্বকাপ হওয়া নিয়েও শঙ্কা রয়েছে।

করোনা এড়াতেই সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বিদেশিদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে অস্ট্রেলিয়া সরকার। করোনা সংক্রমণ তুলনামূলক কম থাকায় সম্প্রতি নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আর্ডান জানিয়েছেন আইসিসি চাইলে আমাদের দেশে বিশ্বকাপ আয়োজন করতে পারে।

নিউজিল্যান্ড প্রধানমন্ত্রীর মতো একই সুরে কথা বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আয়েন হিগিংস। তিনি বলেছেন, আমেরিকায় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজনে আইসিসিকে রাজি করাতে আমরা যথেষ্ট চেষ্টা করব। আমি আত্মবিশ্বাসী বিশ্বকাপ আয়োজনের জন্য দুর্দান্ত মানের স্থান আমাদের এখানে রয়েছে।

ভবিষ্যতে আইসিসির ইভেন্ট আয়োজনের পরিকল্পনার কথা জানিয়ে হিগিংস আরও বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রে বিশ্বকাপ আয়োজনের জন্য আমাদের কমপক্ষে ছয়টি ভেন্যু প্রস্তুত রাখার পরিকল্পনা রয়েছে। যে ভেন্যুগুলোতে আমরা আন্তর্জাতিক ম্যাচ আয়োজনে সক্ষম হব।

তিনি আরও বলেন, আমেরিকায় যদি বিশ্বকাপ ম্যাচে ভারত- পাকিস্তান মুখোমুখি হয় তখন আমার বিশ্বাস সমর্থকদের জায়গা দেয়া যাবে না। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ভক্ত-সমর্থকও বেড়ে যাবে। আমরা যদি যুক্তরাষ্ট্রে বিশ্বকাপ আয়োজন করতে পারি তাহলে আইসিসিও অবশ্যই সাদুবাদ জানাবে।

এর আগে ১৯৯৪ সালে ফিফা বিশ্বকাপ আয়োজন করেছিল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। গত বছর আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ম্যাচ খেলার মর্যাদা পায় আমেরিকা। গত ডিসেম্বর স্কটল্যান্ডকে পরাজিত করে তারা। আইসিসির এই সহযোগী সদস্য দলটির প্রধান নির্বাহী আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেছেন, আগামী দশ বছরের মধ্যে আইসিসির পূর্ণ সদস্য হওয়া আমাদের একমাত্র লক্ষ্য।

সূত্র: বিবিসি

এ বিভাগের আরো সংবাদ