করোনা প্রতিরোধে আরও বহু কাজ বাকি আছে: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

বিশ্বজুড়ে মারাত্মক রূপ নেয়া করোনাভাইরাস প্রতিরোধে আরও বহু কাজ বাকি আছে বলে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস মারাত্মক রূপ নিচ্ছে। প্রতিদিনই আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। মধ্য আমেরিকায় করোনার প্রাদুর্ভাব সর্বোচ্চপর্যায়ে পৌঁছায়নি, এমন অবস্থায় ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে বিশ্বের সব দেশকে জোর চেষ্টা চালানো উচিত।-খবর রয়টার্স

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মহাপরিচালক টেড্রোস আধানম গেবরিয়াসুস সোমবার বলেন, মহামারী শুরু হওয়ার পর ছয়টি মাস পার হয়ে গেলেও কোনো দেশেরই শিথিলতা অবলম্বনের সুযোগ নেই।

অনলাইন ব্রিফিংয়ে তিনি বলেন, রোববার বিশ্বজুড়ে এক লাখ ৩৬ হাজার লোকের করোনা শনাক্ত হয়েছেন। এ পর্যন্ত একদিনে যেটি সর্বোচ্চ। আক্রান্ত হওয়াদের ৭৫ শতাংশ ১০ দেশের, যেগুলো আমেরিকা ও দক্ষিণ এশিয়ার।

চীন নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার জরুরিবিষয়ক শীর্ষ বিশেষজ্ঞ ডা. মাইক রায়ান বলেন, মহামারী কীভাবে মোকাবেলা করা হয়েছে, তার ভূতপূর্ব গবেষণা হতে পারে। করোনার দ্বিতীয় প্রবাহ প্রতিরোধে আমরা কী করছি, সেদিকেই আমাদের আলোকপাত করতে হবে।

রায়ানস বলেন, গুয়েতেমালাসহ মধ্য আমেরিকার দেশগুলোতে মহামারী ক্রমবর্ধমান রয়েছে। তারা মহামারীর জটিলতার মধ্যে আছে।

অঞ্চলটির সরকারের জোরালো নেতৃত্ব ও তাদের প্রতি সহায়তার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, আমি মনে করি, এটি বড় ধরনের উদ্বেগের বিষয়। এখন করোনার হটস্পট হচ্ছে ব্রাজিল। সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা এখন বিশ্বের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ।

করোনা আক্রান্তের দিক থেকে বিশ্বে সবচেয়ে এগিয়ে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। বিশ্বজুড়ে এ পর্যন্ত ৭০ লাখের মতো লোক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন চার লাখের বেশি।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মহামারী বিশেষজ্ঞ মারিয়ান ভ্যান কেরকভ বলেন, করোনা মোকাবেলায় দক্ষিণ আমেরিকায় সমন্বিত পদক্ষেপ নেয়া দরকার। এটি শেষ হতে এখনও অনেক বাকি আছে।

এ বিভাগের আরো সংবাদ