‘করোনা পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের জন্য সমস্যা হবে না’

করোনার এই কঠিন সময়ে বিদেশ সফরে পাকিস্তানি ক্রিকেটাদের কোনো সমস্যা হবে না বলে জানালেন জাতীয় দলের তারকা পেসার জুনায়েদ খান।

পাকফ্যাশননেটকে জুনায়েদ খান বলেছেন, এই সময়ে বিদেশ সফরে আমাদের খেলোয়াড়দের জন্য সমস্যা হবে না। কারণ আমাদের খেলোয়াড়রা কষ্ট এবং কঠিন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় অভ্যস্ত। আপনি যদি আমাদের সাম্প্রতিক ইতিহাসের দিকে তাকান, পাকিস্তানের নিরাপত্তা পরিস্থিতি যখন ভালো ছিল না তখনও কিন্তু আমরা ঘরোয়া ক্রিকেট খেলেছি। আমাদের যে কোনো চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় প্রস্তুত করা হয়েছে। তবে অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ডের খেলোয়াড়রা এই সময়ে ইংল্যান্ড সফর করার আগে কয়েকবার ভাববে। তারা কখনওই সফরে যেতে চাইবে না।

জুলাইয়ে ইংল্যান্ডের মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং পাকিস্তানের সিরিজ নিয়ে জুনায়েদ খান আরও বলেন, মানুষ চায় ক্রিকেট আবারও শুরু হোক। কারণ আন্তর্জাতিক খেলাধুলা না থাকায় সমর্থকরা হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েছে। তাই আমি নিশ্চিত যে এই জাতীয় সফর অনেকের পক্ষে স্বস্তি এনে দিবে।

পাকিস্তানের হয়ে ২২টি টেস্ট, ৭৬টি ওয়ানডে আর ৯টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলে ১৮৯ উইকেট শিকার করা জুনায়েদ খান আরও বলেছেন, করোনাভাইরাসের কারণে সারা বিশ্ব থমকে গেছে। শুধু খেলাধুলা না অনুশীলনও বন্ধ। তবে আমি ভাগ্যবান যে লকডাউন আমাকে তেমন প্রভাবিত করতে পারেনি। যেহেতু আমি গ্রামে বাস করি এবং যানজট নেই তাই রাস্তায় দৌড়াতে এবং নিজেকে ফিট রাখতে সক্ষম হয়েছি।

মোহাম্মদ আমির ও ওহাব রিয়াজের টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নেয়া প্রসঙ্গে জুনায়েদ খান বলেছেন, প্রত্যেক খেলোয়াড়ই জানে কোন্ ফরম্যাটে সে কতটা দক্ষ এবং সে ধরনের ক্রিকেটে তিনি পারফর্ম করতে সক্ষম কিনা। আমির হয়তো মনে করেছে টেস্টে তার পারফরম্যান্স প্রত্যাশিত মানের হচ্ছে না তাই সে বিদায় নিয়েছে।

এ বিভাগের আরো সংবাদ