‘করোনার এই কঠিন সময়ে ভারতে গিয়ে খেলা সম্ভব না’

দক্ষিণ এশিয়ার তিন দেশ বাংলাদেশ, ভারত ও মালদ্বীপের ফুটবল ফেডারেশন এবং সংশ্লিষ্ট ক্লাবের কর্মকর্তাদের সঙ্গে শুক্রবার অনলাইন সভা করে এশিয়ার ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা। সেখানেই সিদ্ধান্ত হয় এএফসির বাকি ম্যাচগুলো মাঠে গড়ানোর ব্যাপারে।

সেপ্টেম্বর কিংবা অক্টোবরে ফের শুরু হবে এএফসি কাপের খেলা। নিরপেক্ষ ভেন্যু মালয়েশিয়াতেই ম্যাচগুলো হওয়ার সম্ভাবনা বেশি।

এএফসির সঙ্গে সভা শেষে শুক্রবার বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ বলেন, এএফসির সভায় তিন দেশের চার ক্লাবই (বাংলাদেশের বসুন্ধরা কিংস, মালদ্বীপের টিসি স্পোর্টস ও মাজিয়া স্পোর্টস এবং ভারতের চেন্নাই সিটি এফসি) একটা বিষয় স্বীকার করেছে, এএফসি কাপের হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ে ফরম্যাট অনুযায়ী এখন বিভিন্ন দেশে গিয়ে খেলা সম্ভব নয়। তাই ম্যাচ না কমিয়ে ফরম্যাট ঠিক রেখে যে কোনো একটি নিরপেক্ষ ভেন্যুতে খেলা সম্ভব।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ থেকে বলা হয়েছে, করোনার এই কঠিন সময়ে ভারতে গিয়ে খেলা কোনোভাবেই সম্ভব নয়। এখন সম্ভাব্য ভেন্যু হিসেবে মালয়েশিয়াকে বিবেচনা করা হচ্ছে। আগামী ১৫ দিনের মধ্যে ভেন্যু নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত পাওয়া যাবে এএফসির কাছ থেকে।

প্রসঙ্গত, করোনাভাইরাসের কারণে গত মার্চে স্থগিত হয়ে যায় এএফসি কাপের খেলা। ১১ মার্চ বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে মালদ্বীপের ক্লাব টিসি স্পোর্টসকে ৫-১ গোলে হারিয়ে এএফসি কাপে অভিষেক হয় বসুন্ধরার।

এ বিভাগের আরো সংবাদ