জর্জ ফ্লয়েড হত্যা: ওয়াশিংটন-ডিসিতে ১৬০০ সেনাসদস্য মোতায়েন

কৃঞ্চাঙ্গ যুবক জর্জ ফ্লয়েড হত্যার ঘটনায় বিক্ষোভকারীরা যুক্তরাষ্ট্রে বেশ কয়েটি অগরাজ্যে সহিংসতার ঘটনা ঘটিয়েছে।গত কয়েকরাতে সহিংস ঘটনার পর ওয়াশিংটন ও ডিসি অঞ্চলে ১৬০০ সেনা মোঙ্তায়েন করেছে দেশটির কর্তৃপক্ষ।

মঙ্গলবার পেন্টাগনের মুখপাত্র জোনাথন রথ হফম্যান এক বিবৃতিতে এ কথা জানিয়েছেন। খবর-রয়টার্সের।

বিবৃতিতে বলা হয়, সেনাবাহিনীকে উচ্চ সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে। তবে এখনই কোনো বেসামরিক কর্তৃপক্ষের প্রতিরক্ষার সমর্থনে কোনো কাজে অংশ নিচ্ছে না।

এর আগে এক সিনিয়র প্রতিরক্ষা কর্মকর্তা বলেছিলেন, একটি ইউনিটকে ওয়াশিংটন অঞ্চলে মোতায়েন করা হয়েছে।

হফম্যান বলেন, এই বাহিনীর মধ্যে মিলিটারি পুলিশ ও ইঞ্জিনিয়ারিং দক্ষতা সম্পন্নরা রয়েছেন।

এদিকে পুলিশ হেফাজতে কৃষ্ণাঙ্গ ফ্লয়েড হত্যার প্রতিবাদে যুক্তরাষ্ট্রে ছড়িয়ে পড়া বিক্ষোভ অষ্টম দিনে গড়িয়েছে। মঙ্গলবার রাতে বিচ্ছিন্ন দুএকটি ঘটনা ছাড়া দেশটির বিভিন্ন অঞ্চলে বিক্ষোভকারীরা শান্তিপূর্ণভাবেই রাস্তায় অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ দেখিয়েছে।

গত সপ্তাহে মিনিপোলিস শহরে ফ্লয়েড নামে ৪৬ বছরের এক কৃষ্ণাঙ্গকে হত্যা করে ডেরেক চাওভিন নামে এক পুলিশের এক সাবেক কর্মকর্তা। ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, ফ্লয়েডের গলায় হাঁটু গেড়ে বসে আছেন ডেরেক। মামলায় ডেরেকের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ আনা হলেও বিক্ষোভকারীদের দাবি, ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্ত আরও তিন পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধেও একই অভিযোগ আনতে হবে।

সিএনএন জানিয়েছে, ওয়াশিংটন ডিসিতে মঙ্গলবার সারাদিনই বিক্ষোভকারীরা শান্ত ছিল। তবে রাতে তারা পুলিশের দিকে পাথর ও আতশবাজি ছুড়ে মারে। জবাবে পুলিশ তাদের লক্ষ্য করে পিপার স্প্রে করে।

এ বিভাগের আরো সংবাদ