আগুনে পুড়ে মৃত রোগীর পরিবারের কাছে দেড় লাখ টাকা বিল দাবি

করোনা টেস্টে ছিলেন তিনি নেগেটিভ। তারপরও ওই রোগীকে রাখা হয় হাসপাতালের করোনা ইউনিটে। রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে মুক্তিযোদ্ধা ওই রোগী মারা যান আগুনে পুড়ে। শুধু তাই নয় রোগী মারা যাওয়ার পর ১ লাখ ৫১ হাজার ৫৫১ টাকার বিলও পাঠানো হয় পরিবারের কাছে। এসবের ব্যাখ্যা চেয়েছেন হাই কোর্ট।

ভেরনোন অ্যান্থনি পল। গত ১৭ মে অসুস্থ হয়ে পড়েন বাসায়। করোনার কারণে দুটি হাসপাতাল ঘুরে ঠাঁই হয় রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতাল। করোনা টেস্টে নেগেটিভ হওয়ার পরও তাকে রাখা সেখানকার করোনা ইউনিটে। কিন্তু ২৭ মের অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে মারা যান তিনি।

ভেরনোন অ্যান্থনি পলের পরিবার বলছে, লাশ আনার সময়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বিলের জন্যে ঝামেলা করেছিল। ওই সময় আমরা টাকা দেওয়ার মত অবস্থায় ছিলাম না। আর হাসপাতালের ভুলে মারা গেছেন এই মুক্তিযোদ্ধা। আমাদের কাছেসহ আরও চার পরিবারের কাছে এইধরনের বিল দাবি অপমানের।

তবে ইউনাইটেড হাসপাতালের কমিউনিকেশন ও বিজনেস পরিচালক সাগুফা আনোয়ার বলছেন, তারা পরিবারের কাছে টাকা চাইছেন না, তবে তাদেরকে বিলটি জানানো হয়েছে।

রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালের ওই আগুনে নিহত ৫ জনের মধ্যে ৩ জন করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগী ছিলেন বলে জানিয়েছিল কর্তৃপক্ষ।

এদিকে, ইউনাইটেড হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন ইউনিটে আগুনে পাঁচ জনের মৃত্যুর ঘটনায় ব্যাখ্যা চেয়েছেন হাই কোর্ট। আগামী ১৪ জুনের মধ্যে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে লিখিত ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে। একইসঙ্গে এ ঘটনায় পুলিশের আইজিপি, ফায়ার বিগ্রেড কর্তৃপক্ষ ও রাজউককে পৃথক পৃথক প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২ জুন) বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের ভার্চুয়াল হাই কোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার মুনতাসির উদ্দিন আহমেদ ও অ্যাডভোকেট নিয়াজ মাহমুদ। রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মুরাদ রেজা।

এর আগে গত ৩০ মে রাজধানীর গুলশানের ইউনাইটেড হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন ইউনিটে এসি বিস্ফোরণের আগুনে পাঁচ জনের মৃত্যুর ঘটনায় রিট করেন আইনজীবী নিয়াজ মাহমুদ ও সাহিদা পারভীন শিলা। গত ২৭ মে রাতে রাজধানীর গুলশানের ইউনাইটেড হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন ইউনিটে এসি বিস্ফোরণের আগুনে পাঁচ জনের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ঘটনাস্থল থেকে পাঁচটি মরদেহ উদ্ধার করা হয়। মৃতদের মধ্যে চারজন পুরুষ এবং একজন নারী।

এ বিভাগের আরো সংবাদ