ভারতীয় সীমান্তে চীনা আগ্রাসনে যুক্তরাষ্ট্রের উদ্বেগ

চীনা সেনাবাহিনী ভারতীয় সীমান্তে উত্তেজনা সৃষ্টি করে দিল্লির ওপর চাপ প্রয়োগের চেষ্টায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে মার্কিন কংগ্রেসের পররাষ্ট্র বিষয়ক কমিটির প্রধান ইলিয়ট এল এঙ্গেল।

সোমবার রাতে এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, লাদাখের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা ধরে যেভাবে ভারতের বিরুদ্ধে চীন আগ্রাসন নীতি নিয়েছে তাতে যুক্তরাষ্ট্র অত্যন্ত উদ্বিগ্ন। তিনি বেইজিংকে সীমান্ত রেখা লঙ্ঘন না করার জন্য নিয়ম-নীতি মেনে চলা ও কূটনীতির মাধ্যমে সমস্যা সমাধানের জন্য আহ্বান জানান।

ভারত ও চীনের মধ্যকার সীমান্ত সমস্যার সমাধান নির্দিষ্ট প্রক্রিয়া মেনেই করা উচিত বলে মনে করেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের এ প্রতিনিধি।

ইলিয়ট এঙ্গেল বলেন, ভারত-চীন সীমান্তে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণের রেখার ওপর চলমান চীনা আগ্রাসনে আমি অত্যন্ত উদ্বিগ্ন। চীন আবারও এটা দেখাচ্ছে যে তারা আন্তর্জাতিক আইন অনুযায়ী বিরোধ নিষ্পত্তি করার পরিবর্তে প্রতিবেশীদের ঝামেলায় ফেলতেই বেশি আগ্রহী।

এক টুইট বার্তায় তিনি লেখেন, সব দেশকেই একই নিয়ম মেনে চলতে হবে, যাতে আমরা এমন একটি পৃথিবীতে বাস করতে পারি যেখানে ‘সঠিক নিয়ম আছে।’ আমি চীনকে একান্তভাবে এই অনুরোধ করছি, যাতে তারা ভারতের সঙ্গে হওয়া সীমান্ত সমস্যার সমাধানে নির্দিষ্ট নিয়ম-নীতিগুলো মেনে চলে এবং কূটনৈতিক কৌশলগুলো ব্যবহার করে।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মে মাসের শেষের দিকে লাদাখের সীমান্ত এলাকায় ভারতীয় ও চীনা সেনাদের মধ্যে উত্তেজনাকর পরিস্থিতি তৈরি হয়। এরপরেই ভূ-উপগ্রহ চিত্রের বরাতে বলা হয়, বেজিং লাদাখের কাছে তাদের বিমানঘাঁটি সম্প্রসারণের পাশাপাশি কয়েকটি যুদ্ধবিমানও প্রস্তুত রেখেছে।

এ বিভাগের আরো সংবাদ