সিলেটে দ্রুত ছড়াচ্ছে করোনা, আক্রান্তের সংখ্যা হাজার ছাড়িয়েছে

গত ৫ এপ্রিল সিলেটে প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হন। প্রথম রোগী শনা্ক্তের দুই মাস না যেতেই সিলেট বিভাগে করোনা শনাক্ত হওয়ার সংখ্যা এক হাজার ছাড়িয়েছে।

রোববার এই বিভাগের চার জেলা মিলিয়ে নতুন করে ৯৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। সবমিলিয়ে পুরো বিভাগের শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১০৪১ জন।

মাত্র ছাপান্ন দিনেই সিলেটে শনাক্তের সংখ্যা হাজার ছাড়ালো। ফলে সিলেটে দ্রুতই ছড়িয়ে পড়ছে বিশ্বজুড়ে মহামারি সৃষ্টি করা এই সংক্রামক ভাইরাস।

দীর্ঘ সাধারণ ছুটি শেষে রোববার থেকেই খুলেছে অফিস-আদালত ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। সবকিছু খুলে দেওয়ার দিনেই সিলেট বিভাগে শনাক্ত হলেন ৯৪ জন করোনা আক্রান্ত রোগী।

সিলেটে বর্তমানে ওসমানী মেডিকেল কলেজ  এবং শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পিসিআর ল্যাবে করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এই দুই ল্যাবে যথাক্রমে সিলেট ও সুনামগঞ্জ জেলা থেকে সংগ্রহিত নমুনা পরীক্ষা করা হয়। বিভাগের বাকী দুই জেলা মৌলভীবাজার ও হবিগঞ্জের নমুনা পরীক্ষা হয় ঢাকার ল্যাবে।

রোববার সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে নমুনা পরীক্ষায় সিলেট জেলার ২২ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এদিন ওসমানীর ল্যবে ১৮৮ জনের নমুনা পরীক্ষা হয়। এতে ২২ টি পজেটিভ আসে।

শনাক্ত হওয়ারা সিলেটের জৈন্তাপুর, দক্ষিণ সুরমা, সদর ও জকিগঞ্জ উপজেলা এবং নগরীর বাসিন্দা।

নতুন করে ২২ জন আক্রান্ত হওয়ায় সিলেটে জেলায় এ পর্যন্ত করোনাভাইস শনাক্ত হয়েছে ৫৫৬ জনের।

একইদিনে হবিগঞ্জে আরও ২১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। রোববার ঢাকার ল্যাবে পরীক্ষায় এই ২১ জনের করোনা শনাক্ত হয়।

নতুন শনাক্ত হওয়া ২১ জনের মধ্যে বাহুবলের ৮ জন, চুনারুঘাটের ৫ জন, সদর উপজেলার ৪ জন, আজমিরীগঞ্জের ২ জন, নবীগঞ্জের ১ জন ও লাখাইয়ের ১ জন। এরমধ্যে পুলিশ, স্বাস্থ্যকর্মীসহ সরকারি কর্মচারী রয়েছেন ৪ জন।

এনিয়ে হবিগঞ্জ জেলায় মোট আক্রান্ত হয়েছেন ১৯২ জন। এদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৮৭ জন ও মারা গেছেন ১ জন।

রোববার শা্হজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবে নমুনা পরীক্ষায় সুনামগঞ্জের ২১ জনের করোনা শনাক্ত হয়। সুনামগঞ্জের শনাক্ত হওয়াদের মধ্যে একটি নিরাপত্তা বাহিনীর বেশ কয়েকজন সদস্য রয়েছেন বলে জানা গেছে।

আর ঢাকার ল্যাবে পরীক্ষায় মৌলভীবাজারে রোববার ৩০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। করোনা সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর মৌলভীবাজার জেলায় একদিনে এটিই সর্বোচ্চ সংখ্যক শনাক্তের ঘটনা।

মৌলভীবাজারের সিভিল সার্জন ডা. তাওহীদ আহমদ এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, শনাক্ত হওয়াদের মধ্যে ১৮ জনই শ্রীমঙ্গল উপজেলার। বাকীদের মধ্যে কমলগঞ্জের ৬ জন, কুলাউড়ার ৩ জন, বড়লেখার ২ জন ও রাজনগরের একজন।

এই ৩০ জনসহ মৌলভীবাজারে এ পর্যন্ত করোনা শনাক্ত হয়েছে ৩৮৮ জনের।

শনাক্ত হওয়াদের মধ্যে বিভাগে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ১৮ জন, সুস্থ ২৫০জন। আর হাসপাতালে ভর্তি আছেন ১২২ জন।

 

এ বিভাগের আরো সংবাদ