হিংস্র কুকুর লেলিয়ে বিক্ষোভ দমনের হুমকি: সমালোচনায় ট্রাম্প

মিনেসোটা অঙ্গরাজ্যের মিনিয়েপোলিস শহরে পুলিশের হাতে কৃষ্ণাঙ্গ যুবক জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে চলছে বিক্ষোভ। ঘেরাও করা হয়েছে দেশটির প্রেসিডেন্টের সরকারি বাসভবন হোয়াইট হাউসও।

এমন উদ্ভূত পরিস্থিতিতে হিংস্র কুকুর লেলিয়ে বিক্ষোভকারীদের শায়েস্তা করার হুমকি দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

শনিবার এক টুইটে তিনি বলেন, বিক্ষোভকারীরা হোয়াইট হাউসের সীমানা অতিক্রম করলে তাদের জন্য হিংস্র কুকুরের পাল ও সাংঘাতিক অস্ত্র প্রস্তুত ছিল, যা আগে কখনো দেখিনি। খবর রয়টার্সের।

এ বিক্ষোভ নিয়ে শনিবার একাধিক টুইট করেছেন ট্রাম্প। তিনি তার সমর্থকদের আহ্বান জানিয়ে লেখেন, হোয়াইট হাউসের আজকের রাত কি ম্যাগা রাত হয়ে উঠবে? ম্যাগা হলো ট্রাম্পের ‘মেক আমেরিকা গ্রেট এগেইন’ স্লোগানের সংক্ষিপ্ত রূপ।

২৫ মে মিনেসোটা অঙ্গরাজ্যের বড় শহর মিনিয়াপলিসে পুলিশের হাতে জর্জ ফ্লয়েড নামে এক কৃষ্ণাঙ্গ নির্মমভাবে নিহত হন। এরপরই শুরু হয় বিক্ষোভ। যা এখন পুরো যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে।

স্থানীয় সময় শনিবার সকালে হোয়াইট হাউসের সামনে থেকে বিক্ষোভকারীদের সরিয়ে দিয়েছে মার্কিন আইন শৃঙ্খলাবাহিনীর সদস্যরা। এছাড়া নিরাপত্তার কারণে পুরো হোয়াইট হাউস লকডাউন করে দেয়া হয়েছে।

একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, পুলিশ বিক্ষোভকারীদের সরিয়ে দিলে তারা আবার ফিরে আসে। পুলিশ অফিসার ও ক্ষুব্ধ জনতার মধ্যে ধাক্কাধাক্কি শুরু হয়।

গোটা ঘটনায় মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থার প্রশংসা করেছেন প্রেসিডেন্ট। যথেষ্ট প্ররোচনা থাকা স্বত্বেও সংস্থার কর্মকর্তারা নিজেদের শান্ত রেখেছিলেন জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমি ভিতরে ছিলাম। প্রত্যেকটি গতিবিধি আমি দেখেছি। এত নিরাপদ আমি কখনো বোধ করিনি।’

ট্রাম্প আরও লেখেন, ‘বহু মানুষের জমায়েত হয়েছিল। কিন্তু কেউ হোয়াইট হাউসের সীমানা টপকাতে পারিনি। যদি তারা সেটা করত তাহলে তাদের স্বাগত জানাতে ভয়ংকর কুকুরের পাল ও সাংঘাতিক অস্ত্র সজ্জিত ছিল। গোয়েন্দা সংস্থার বহু সদস্য ঝাঁপিয়ে পড়ার অপেক্ষায় ছিলেন।’

ট্রাম্পের এমন কথার তীব্র সমালোচনা করেছেন ওয়াশিংটন ডিসির মেয়র ডেমোক্র্যাট দলের সদস্য মুরিয়েল বাউজার।
একটি টুইট বার্তা ওয়াশিংটনের মেয়র বাউজার বলেন, কোন হিংস্র কুকুর বা ভয়ঙ্কর অস্ত্র নেই। আছে শুধু একজন ভীত মানুষ। এর আগের দিন শুক্রবার ট্রাম্প ‘লুট করলে গুলি চলবে’ বলে হুমকি দিয়েছিলেন।

এ মন্তব্যেও সমালোচনার শিকার হন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

এ বিভাগের আরো সংবাদ