স্ত্রী-সন্তানকে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যা!

পারিবারিক কলহের জের ধরে স্ত্রী-সন্তানকে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে।

শনিবার (১৬ মে) ভোরে রংপুরের গঙ্গাচড়া উপজেলার বড়বিল ইউনিয়নের বালাপাড়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

গঙ্গাচড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুশান্ত কুমার সরকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ জানায়, বালাপাড়া গ্রামের হাফিজুল ইসলাম কাজ করতো না বলে তার স্ত্রী ফাতেমা বেগমের সঙ্গে প্রায়ই ঝগড়া হতো। শুক্রবার রাতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হলে হাফিজুল তার স্ত্রীকে দেড় বছরের মেয়ে হুমায়রাকে নিয়ে বাসা থেকে চলে যেতে বলে। সেই ঝগড়ার জের ধরে শনিবার ভোরে ঘুমন্ত অবস্থায় ধান কাটার কাচিয়া স্ত্রী ও মেয়েকে গলা কেটে হত্যা করে হাফিজুল। এরপর হাফিজুল গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।

খবর পেয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আফজালুল হক রাজু ঘটনাস্থলে এসে পুলিশকে খবর দেয়। পরে গঙ্গাচড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তসলিমা বেগম এবং ওসি সুশান্ত কুমার সরকার ঘটনা স্থলে আসেন।

তারা দুজনেই সাংবাদিকদের জানান, পারিবারিক কলহের কারণে এই ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। তবে তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত নিশ্চিত করে কিছুই বলা যাচ্ছে না।

এ বিভাগের আরো সংবাদ