নতুন স্বপ্ন বুনছেন ১৪ লাখ ৪১ হাজার করোনাযোদ্ধা

মহামারী কোভিড ১৯-এ আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর দুয়ার থেকে ফিরে এসেছেন বিশ্বের ১৪ লাখ ৪১ হাজার মানুষ। তারা এখন নতুন করে বাঁচার স্বপ্ন দেখছেন। পৃথিবীটাকে নতুন করে দেখার স্বপ্ন বুনছেন তারা।

বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে বিশ্বের ২১০ দেশ ও অঞ্চলে। এই ভাইরাসে প্রাণহানি ও মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েই চলেছে।

করোনাভাইরাসে প্রাণহানি ও আক্রান্তের পরিসংখ্যান রাখা আন্তর্জাতিক সংস্থা ওয়ার্ল্ডওমিটারসের তথ্যানুযায়ী, রোববার বেলা সাড়ে ১১টায় বৈশ্বিক মহামারীতে ২ লাখ ৮০ হাজার ৪৪৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর আক্রান্ত হয়েছেন বিশ্বের ৪১ লাখ ১ হাজার ৭৭২ জন মানুষ। তাদের মধ্যে বর্তমানে ২৩ লাখ ৭৮ হাজার ৮২১ জন চিকিৎসাধীন এবং ৪৭ হাজার ৬৮৩ জন (২ শতাংশ) আশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছে।

এ পর্যন্ত করোনাভাইরাস আক্রান্তদের মধ্যে ১৪ লাখ ৪১ হাজার ৪৭৪ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

কোভিড-১৯ রোগে থেকে যুক্তরাষ্ট্রে সেরে উঠেছে দুই লাখ ৩৮ হাজার ৭৮ জন, স্পেনে সেরে উঠেছে এক লাখ ৭৩ হাজার ১৫৭ জন, জার্মানিতে এক লাখ ৪৩ হাজার ৩০০, ইতালিতে এক লাখ তিন হাজার ৩১, তুরস্কে ৮৯ হাজার ৪৮০, ইরানে ৮৫ হাজার ৬৪, চীনের মূল ভূখণ্ডে ৭৮ হাজার ১২০, ব্রাজিলে ৫৯ হাজার ২৯৭ এবং ফ্রান্সে ৫৬ হাজার ৩৮ জন সুস্থ হয়ে উঠেছে।

এ ছাড়া রাশিয়ায় ৩১ হাজার ৯১৬ জন, কানাডায় ৩১ হাজার ২৪৯, সুইজারল্যান্ডে ২৬ হাজার ৪০০, মেক্সিকো ২১ হাজার ৮২৪, অস্ট্রিয়ায় ১৩ হাজার ৯২৮, বেলজিয়ামে ১৩ হাজার ৪১১, দক্ষিণ কোরিয়ায় ৯ হাজার ৬১০, অস্ট্রেলিয়ায় ছয় হাজার ১৩৫ এবং মালয়েশিয়ায় চার হাজার ৯২৯ জন সুস্থ হয়ে উঠেছে। বাংলাদেশে দুই সহস্রাধিক মানুষ সুস্থ হয়ে উঠেছেন করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর।

গত বছরের ১৭ ডিসেম্বর চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহর থেকে প্রথম দেখা দেয়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস বাংলাদেশসহ বিশ্বময় ছড়িয়ে পড়েছে। গত ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারী ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

এ বিভাগের আরো সংবাদ