শায়েস্তাগঞ্জে ত্রাণ বিতরণে অনিয়মকারী চেয়ারম্যানকে আ’লীগ থেকে বহিষ্কার

ত্রাণ বিতরণে অনিয়ম ও দুর্নীতির কারণে হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার নূরপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মুখলিছ মিয়াকে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

শনিবার (৯ মে) রাত পৌনে ১১ টায় শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুর রশিদ তালুকদার এবং সাধারণ সম্পাদক হোসাইন মো. আদিল জজ মিয়া স্বাক্ষরিত এক পত্রে তাকে বহিষ্কার করা হয়। মুখলিছ মিয়া হবিগঞ্জ সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-প্রচার সম্পাদক ছিলেন।

বহিষ্কারাদেশে বলা হয়েছে, সাম্প্রতিককালে সরকারি ত্রাণ বিতরণে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে মুখলিছ মিয়ার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হওয়ায় তাকে সংগঠন থেকে সাময়িকভাবে বহিস্কার করা হয়েছে। পাশাপাশি কেন তাকে স্থায়ীভাবে বহিস্কার করা হবে না এ ব্যাপারে ৭ দিনের মধ্যে কারণ দর্শাতেও বলা হয়েছে।

জানা গেছে, নূরপুর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে শুক্রবার দীর্ঘ অভিযান পরিচালনা করেন হবিগঞ্জের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইয়াসিন আরাফাত রানা। এ সময় সরকারি ত্রাণ বিতরণ করার জন্য বরাদ্দকৃত ২ হাজার কেজি চালের মধ্যে ১ হাজার ৭০০ কেজি চাল পাওয়া যায়। যেহেতু ৩০০ কেজি চাল পাওয়া যায়নি, তাই ওই ১ হাজার ৭০০ কেজি চাল জব্দ করেন তিনি।

এছাড়াও সরকারি ত্রাণের পাশাপাশি ওই চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ভিজিডির (ভালনারেবল গ্রুপ ডেভেলপমেন্ট) চাল বিতরণেও অনিয়মের প্রমাণ পাওয়া গেছে। জানুয়ারি থেকে চাল বিতরণের দাবি করলেও কোনো মাস্টার রোল দেখাতে পারেননি ইউপি চেয়ারম্যান। এসব চাল বিতরণের সময় সরকারি ট্যাগ অফিসার, ইউপি সচিব, এনজিও প্রতিনিধি কাউকেই উপস্থিত রাখা হয়নি।

এ ঘটনায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নির্দেশে শায়েস্তাগঞ্জ থানায় নিয়মিত মামলা রুজু হয়। ইউপি চেয়ারম্যান মুখলিছ মিয়াকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানিয়েছেন শায়েস্তাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোজাম্মেল হোসেন।

এ বিভাগের আরো সংবাদ