গোয়াইনঘাটে আরও এক ব্যক্তির করোনা পজিটিভ, মসজিদসহ ১২ বাড়ি লকডাউন

সিলেটের গোয়াইনঘাটে আরও এক ব্যক্তির শরীরে করোনার উপস্থিতি শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে গোয়াইনঘাট উপজেলায় দুইজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হলো। তার বয়স (৭৯) বছর।

আক্রান্ত ব্যক্তির দেয়া নমুনা পজিটিভ হওয়ার খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক শনিবার দুপুরে গোয়াইনঘাটের উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. নাজমুস সাকিব, গোয়াইনঘাট থানা অফিসার ইনচার্জ মো. আব্দুল আহাদ, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ইউএইচও ডা. রেহান উদ্দিনসহ প্রশাসন কর্মকর্তাগণ সরজমিন আক্রান্ত ব্যক্তির ধর্মগ্রামের বাড়ি পরিদর্শন করে আক্রান্ত ব্যক্তির শারীরিক অবস্থা ও বয়স বিবেচনায় তার বাড়িতেই চিকিৎসকের পরামর্শে তাকে তার বাড়িতেই হোম আইসোলেশনে রাখা হয়েছে এবং  স্থানীয় ধর্মগ্রাম মসজিদসহ আশপাশের ১২টি বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে।

এ দিকে করোনাভাইরাস সংক্রমণরোধে গোয়াইনঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আইসোলেশন ওয়ার্ডে তামাবিল স্থল বন্দর দিয়ে ভারত থেকে আগত ১ নারীসহ ৮ যাত্রীকে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। সিলেটের গোয়াইনঘাটে ইতিপূর্বে উপজেলার ৮ নং তোয়াকুল ইউনিয়নের বীরকুলি গ্রামের এক ব্যক্তির শরীরে করোনা শনাক্ত হলে তাকে সিলেটের শামসুদ্দিন হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করে চিকিৎসা দেয়া হলে সে এখন অনেকটা সুস্থ বলে জানা যায়। অপরদিকে সম্প্রতি করোনা উপসর্গ নিয়ে উপজেলার ৯ নং ডৌবাড়ি ইউনিয়নের খলারছটি গ্রামের মাওলানা আবু বকর মারা গেলেও তার করোনার নমুনার রিপোর্ট ঢাকা থেকে এখনো আসেনি বলে জানান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ইউএইচও ডা. রেহান উদ্দিন।

গোয়াইনঘাটের উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. নাজমুস সাকিব জানান, শনিবার গোয়াইনঘাটের ৫নং আলীরগাও ইউনিয়নে এক ব্যক্তির করোনাভাইরাস পজিটিভ হওয়ায় আক্রান্ত ব্যক্তিকে বয়স ও স্বাস্থ্যের অবস্থা বিবেচনায় ডাক্তারের পরামর্শে তার বাড়িতেই হোম আইসোলেশন করে রাখা হয়েছে। জনসমাগম বন্ধে স্থানীয় ধর্মগ্রামের মসজিদসহ আশপাশের ১২ টি বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে।

এ বিভাগের আরো সংবাদ