বিশ্বনাথে হত্যা মামলার সাড়ে পাঁচমাস পর ৩ আসামি গ্রেপ্তার

২০১৯ সালের ১৫ নভেন্বর সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার লামাকাজি ইউনয়িনের দুর্লভপুর গ্রামের এক পুকুর থেকে -পা বাঁধা অবস্থায় অর্ধগলিত এক নারীর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ২৫ থেকে ৩০ বছর বয়সী  ওই নারী হত্যার ঘটনায় ওইদিন রাতে অজ্ঞাতনামা আসামি করে থানায় একটি হত্যা মামলা রুজ্জু করা হয়। থানার তৎকালীণ এসআই মিজানুর রহমান বাদী হয়ে এ হত্যা মামলাটি দায়ের করেন, (মামলা নং ১৪, তারিখ ১৫/১১/১৯ইং)।

মামলার দীর্ঘ সাড়ে পাঁচমাস পর অবশেষে হত্যার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে তিন যুবককে গ্রেপ্তারের পর জেলহাজতে পাঠিয়েছে থানা পুলিশ। বৃহস্পতিবার (৩০ এপ্রিল) বিকেলে আদালতের মাধ্যমে তাদেরকে জেলহাজতে পাঠানো হয়। এর আগে বুধবার রাতে তাদের তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হচ্ছেন, উপজেলার কাজিরগাঁও গ্রামের জসিম মিয়ার ছেলে দুলাল মিয়া (২৮), তবলপুর গ্রামের ফজর আলীর ছেলে মুক্তার মিয়া (২৬) ও কাবিলপুর গ্রামের আসাদ মিয়ার ছেলে তাজুল মিয়া (২৭)।

গ্রেপ্তারে সত্যতা স্বীকার করে বিশ্বনাথ থানার ওসি (তদন্ত) রমা প্রসাদ চক্রবর্তী বলেন, সন্দেহভাজন হিসেবে তাদের তিনজনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। পরবর্তিতে রিমান্ডে আনা হলে হত্যার রহস্য উদঘাটন হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

এ বিভাগের আরো সংবাদ