লকডাউনের প্রভাব: ঘরে চাল নেই, বিষধর সাপ ধরে রান্না!

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে বিশ্বজুড়েই চলছে লকডাউন। এর প্রভাব পড়েছে ভারতেও। দেশটিতে করোনা ঠেকাতে চলছে টানা লকডাউন। এতে কর্মহীন হয়ে পড়েছে অসংখ্য মানুষ। ঘরে দু’বেলা দু’মুঠো খাওয়ার সংস্থান নেই অনেকেরই।

কিন্তু ক্ষিদের জ্বালা বড় জ্বালা। তাই একরকম বাধ্য হয়েই ১২ ফুটের একটি বিষধর গোখরো সাপ শিকার করে খেয়েছে অরুণাচল প্রদেশের একদল শিকারি।
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ রকম একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে ওই দীর্ঘকায় সাপটি ৩ ব্যক্তি নিজেদের কাঁধে জড়িয়ে রেখেছেন।

তারা দাবি করছেন, জঙ্গলে গিয়ে কিং কোবরা বা গোখরা সাপটিকে ধরে নিয়ে এসেছেন তারা। এরপর ওই সাপটিকে মেরে তার ছাল ছাড়িয়ে পরিষ্কার করা হয়ে গেলে তাকে টুকরো টুকরো করে কেটে কলাপাতায় রাখেন তারা। এরপর আগুন জ্বালিয়ে ভালো করে ফুটিয়ে রান্না করা হয় বিষধর সাপটিকে। পরে তা খেয়ে পেটের জ্বালা মেটান তারা।

এ সময় তাদের একজনকে বলতে শোনা যায়, কোভিড-১৯ মহামারীর কারণে জারি করা লকডাউনের কারণে তাদের ঘরে কোনও চাল নেই। ‘তাই কিছু পাই কি না দেখতে জঙ্গলে গিয়েছিলাম আর এটিকে পেলাম,’ বলেন ওই ব্যক্তি।

ভারতের বন্যপ্রাণী সুরক্ষা আইনে শঙ্খচূড়া সাপ একটি সুরক্ষিত সরীসৃপ এবং এর হত্যা জামিন অযোগ্য অপরাধ।

এই আইনে ওই ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং তারপর থেকে তারা পালিয়ে আছেন বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।

বিডি প্রতিদিন/কালাম

এ বিভাগের আরো সংবাদ