ভোলায় ভারতীয় ট্রলারে ১০ কোটি টাকার শাড়ি

ভোলাঃ ভোলায় ১০ কোটি টাকা মূল্যের ২৬ হাজার পিচ ভারতীয় শাড়ি জব্দ করেছে কোস্টগার্ড। এ সময় একটি ভারতীয় ট্রলার, চার ভারতীয় নাগরিকসহ ১৫ জন পাচারকারীকে আটক করা হয়।

বৃহস্পতিবার সকালে ভোলা খেয়াঘাট এলাকায় কোস্টগার্ড দক্ষিণ জোন অফিসে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য নিশ্চিত করেন দক্ষিণ জোনের লে. বিএন মাহাবুবুল আলম শাকিল আহম্মেদ।

তিনি জানান, ভারত থেকে ট্রলারযোগে অবৈধ পথে শাড়ি নিয়ে গত ১৬ ফেব্রুয়ারি রাতে ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার চর কুকরি-মুকরি এলাকার সোনার চর আসলে কোস্টগার্ড গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়। এ সময় ওই ট্রলার থেকে ২৬ হাজার পিচ ভারতীয় শাড়ি জব্দ করা হয়। যার বাজার মূল্য প্রায় ১০ কোটি টাকা। এ ছাড়াও এর সঙ্গে জড়িত ৪ ভারতীয় নাগরিক ও ১১ বাংলাদেশিকে আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন- ভারতীয় নাগরিক রমেশ দাশ, পরান দাশ, সুভাস মণ্ডল, লক্ষণ দাশ এবং বাংলাদেশিদের মধ্যে রয়েছেন- জসিম উদ্দিন, মাহমুদুল হাসান, সনজিত মালো, মো. হানিফ, মো. আবু বক্কর, সোবাহান মৃধা, উত্তম কুমার দাস, রবিন কুমার দাশ, বালা চাঁদ, মৃণাল চন্দ্র ও মো. মিজান। এদের বাড়ি পটুয়াখালী ও বরগুনা জেলায়।

মাহাবুবুল আলম শাকিল আহম্মেদ জানান, আটককৃতদের আইনি প্রক্রিয়া শেষে চরফ্যাশনের দক্ষিণ আইচা থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। জব্দকৃত শাড়ি ভোলা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

নদীপথে সব অবৈধ মালামাল পাচারকারীদের ব্যাপারে কোস্টগার্ডের অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানান এ কর্মকর্তা।

 

আরএফ/ যুগান্তর

এ বিভাগের আরো সংবাদ