ছয় বছরে এমন বাজে সময় কাটেনি মেসির

লা লিগার চলতি মৌসুমে চার ম্যাচে জাল খুঁজে পাননি লিওনেল মেসি। অন্য কারো জন্য এটা স্বাভাবিক ঘটনা হলেও আর্জেন্টাইন ফুটবল জাদুকরের জন্য এটা বেশ বাজে অভিজ্ঞতা। সর্বশেষ তিনি এমন বাজে সময়ের মুখোমুখি হয়েছিলেন ২০১৪ সালের জানুয়ারিতে।

ক্যাম্প ন্যুয়ে শনিবার রাতে গেতাফেকে ২-১ গোলে হারানোর রাতে গোলের দেখা পাননি মেসি। এই জয়ে শীর্ষে থাকা রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে পয়েন্টের পার্থক্য ঘুচিয়ে নিয়েছে বার্সা। তবে রিয়াল অবশ্য এক ম্যাচ কম খেলেছে।

গেতাফে ম্যাচ দিয়েই এই মৌসুমে চার ম্যাচে গোলশূন্য থাকার অভিজ্ঞতা হলো মেসির। গেতাফের আগে ভ্যালেন্সিয়া, লেভান্তে এবং রিয়াল বেতিসের বিপক্ষেও গোল করতে পারেননি আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড। তবে গেতাফে ম্যাচে দলের প্রথম গোলে অ্যাসিস্ট করেছেন তিনি।

কিকে সেতিয়েনের দায়িত্ব নেওয়ার পর প্রথম ম্যাচে গ্রানাদার বিপক্ষে গোলের দেখা পেয়েছিলেন মেসি। এরপর লা লিগায় ৩১টি শট নিয়েছেন মেসি, যার মধ্যে ১৫টি ছিল গোলমুখে এবং একটাও সফল হয়নি। গেতাফের বিপক্ষে ৬টি শট নিয়েছিলেন, যার দুটি ছিল গোলমুখে। শুধু তাই না, ফ্রি-কিকেও সফলতা পাচ্ছেন না তিনি।

চার বা তার চেয়েও অধিক ম্যাচে গোলের দেখা না পাওয়া অবশ্য মেসির জন্য নতুন কিছু নয়। এর আগে ২০১৪ সালে ১৩ ম্যাচে গোলশূন্য ছিলেন তিনি। তবে এর মধ্যে ৫ ম্যাচে ইনজুরির কারণে মাঠের বাইরে থাকতে হয়েছে তাকে।

সাম্প্রতিক ব্যর্থতা সত্ত্বেও এই মৌসুমে ১৯ ম্যাচে ১৪ গোল নিয়ে লা লিগায় গোলদাতাদের তালিকায় শীর্ষে আছেন মেসি। এর মধ্যে মায়োর্কা এবং সেল্টা ভিগোর বিপক্ষে হ্যাটট্রিকও আছে। তবে ২০১৩-১৪ মৌসুমের পর এবারই সবচেয়ে কম গোল নিয়ে শীর্ষে আছেন তিনি। যদিও কেবলই মৌসুমের ২৪ সপ্তাহ পার হয়েছে। তবে ১৯ ম্যাচের ১০টিতেই গোল পাননি।

গোল না পাওয়া নিয়ে মেসির খুব একটা দুশ্চিন্তা করার কারণ নেই। কারণ এই মৌসুমে অ্যাসিস্ট করার ক্ষেত্রে বাকি সবাইকে ছাড়িয়ে গেছেন তিনি। সর্বশেষ তিন লা লিগা ম্যাচে তিনি ৬টি অ্যাসিস্ট করেছেন। সবমিলিয়ে এই মৌসুমে তার মোট অ্যাসিস্ট হলো ১২টি।

জানুয়ারির শুরু থেকে কাতালান ডার্বিতে এসপানিওলের সঙ্গে ড্র, ইনজুরির কারণে লম্বা সময়ের জন্য লুইস সুয়ারেসকে হারানো, সুপার কোপার সেমিফাইনালে হার, কোচের বদল, অ্যাথলেটিক ক্লাবের কাছে হেরে কোপা দেল রে থেকে বিদায়। সবমিলিয়ে বার্সার দিনকাল মোটেও ভালো যাচ্ছে না।

ওদিকে মাঠের বাইরে, ক্লাবের ক্রীড়া পরিচালক এরিক আবিদালের সঙ্গে কথার লড়াইয়ে নামা, যেখানে ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করে সতীর্থদের পাশে দাঁড়িয়ে নজির স্থাপন করেছেন মেসি। এই ঝামেলা মিটলেও বার্সার সামনে এখন কঠিন সময় অপেক্ষা করছে।

বার্সার সামনে নাপোলির বিপক্ষে চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোর প্রথম লেগের ম্যাচ এবং সান্তিয়াকো বার্নাব্যুতে এল ক্লাসিকোর ম্যাচ আছে। এর আগে ক্যাম্প ন্যুয়ে এইবারের বিপক্ষে ম্যাচ খেলবে বর্তমান লিগ চ্যাম্পিয়নরা, যেখান থেকেই ফের গোলের দেখা পেতে শুরু করবেন মেসি এমনটাই আশা বার্সা সমর্থকদের।

আরএফ

এ বিভাগের আরো সংবাদ