বালাগঞ্জে অবৈধ ভাবে সরকারী খাল দখলের অভিযোগ

 

বালাগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম গৌরীপুর ইউনিয়নের আতাসন গ্রামে বহমান খরাইখাল নামক একটি সরকারি খাল দখল করে অবৈধভাবে ঘর নির্মান, সরকারি রাস্তার সাইট কেটে দোকান কোটা নির্মান এবং কালভার্টের সাইট ভেঙ্গে ভূমি জবর দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। সম্প্রতি এসব অভিযোগ এনে উপজেলার পশ্চিম গৌরীপুর ইউনিয়নের ১,২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের ইউ/পি সদস্য, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য, গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও এলাকার জনসাধারণের পক্ষে স্থানীয় ইউ/পি সদস্য স্বপন কান্তি দাস সপু, পশ্চিম গৌরীপুর ইউ/পি’র ২ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি ছানাওর হোসেন ছানু ও সাধারণ সম্পাদক শাহিন আহমদ স্বাক্ষরিত একটি অভিযোগ পত্র বালাগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বরাবর দাখিল করা হয়েছে।

দাখিলকৃত এই অভিযোগ পত্র থেকে জানা যায়, আতাসন মৌজার খরাইখাল, বেতরী নদী হতে টেকামুদ্রা মৌজার সংযোগ স্থল ও খালের পশ্চিম পাশের সরকারি গোপাট, কালভার্টের রেলিং ভেঙ্গে অবৈধভাবে দোকান নির্মান এবং খালটি পূর্ন ভরাট করার কারনে পানি নিষ্কাসন ব্যবস্থায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হচ্ছে। এছাড়াও রাস্তার পাশে অবৈধভাবে দোকান কোটা নির্মান করায় যান বাহন চলাচলে সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে বলেও অভিযোগ পত্রে উল্লেখ করা হয়েছে। তাছাড়া খাল ভরাট করার ফলে পানি যাতায়াত ব্যবস্থা একেবারে বন্ধ হয়ে যাওয়ার কারনে ময়লা-আবর্জনা জমাট হয়ে চার দিকে দূর্গন্ধ ছড়াচ্ছে বলেও অভিযোগ পত্রে উল্লেখ আছে। সরেজমিনে খাল ভরাট কৃত এলাকায় গেলে স্থানীয় জনসাধারণ সরকারী এ খালটি পুনরুদ্ধারের জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি জোর দাবি জানান। তবে, যে বা যারা খাল দখল করছে তাদের কারো নাম অভিযোগ পত্রে উল্লেখ করা হয়নি।

এ ব্যাপারে বালাগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুমন চন্দ্র দাস বলেন, বিষয়টি জানার পর আমি ওই এলাকায় তহশিলদার পাঠিয়েছি। যারা খাল দখল করে দোকান কোটা তৈরী করছে তারা বলছে এ জায়গা তাদের। তারা আগামী রবিবারে কাগজপত্র নিয়ে আসার কথা রয়েছে। পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত দোকান নির্মান কাজ বন্ধ থাকার কথা বলা হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
এ বিভাগের আরো সংবাদ